নিউজঅর্থনীতি

মাত্র কয়েক হাজার বিনিয়োগ করলেই পাবেন ৪০ লাখ টাকা, জেনে নিন এই প্রকল্পের বিস্তারিত তথ্য

অতিমারি করোনা থেকে মুক্ত হয়ে সাম্প্রতিক সময়ে আশার আলো দেখছে সকলে। ফলে আবারও অনেকেই নতুন করে ভবিষ্যতের জন্য সঞ্চয়ের পরিকল্পনা করছেন। তবে কোন জায়গায় বিনিয়োগ করলে বেশি পরিমাণ রিটার্ন পাওয়া যাবে সেই বিষয়ে অনেকেই দ্বন্দ্বের মধ্যে রয়েছেন। এমন এক প্রকল্প বা স্কিম রয়েছে যেখানে বিনিয়োগ করলে মেয়াদ শেষে পাওয়া যাবে ভালো পরিমাণ টাকা। যারা এই ধরনের পরিকল্পনা করছেন তাদের জন্য এই প্রতিবেদন গুরুত্বপূর্ণ।

অতিমারি করোনার সময় থেকে কম-বেশি সকল মানুষেরই জমানো টাকা খসেছে। অনেকেরই ব্যাঙ্কের অ্যাকাউন্ট প্রায় শূন্য হয়ে গিয়েছে। তবে বর্তমানে দেশ আবারও নতুন করে আশার আলো দেখছে। মানুষ কাজ করছে। ফলে অনেকেই সঞ্চয়ের পরিকল্পনা করছেন। তবে চিন্তা নেই, এমন এক স্কিম বা প্রকল্প রয়েছে যেখানে ১২,৫০০ টাকা বিনিয়োগ করলে মেয়াদ শেষে ৪০ লাখ টাকারও বেশি রিটার্ন পাওয়া যাবে।

কি সেই প্রকল্প? এই প্রকল্পের নাম হল পাবলিক প্রভিডেন্ট ফান্ড বা পিপিএফ (PPF)। দেশের জনপ্রিয় প্রকল্পগুলির মধ্যে অন্যতম প্রকল্প এই পিপিএফ। ঝুঁকিহীনভাবে এই প্রকল্পে গ্রাহকরা বিনিয়োগ করতে পারে। যার মেয়াদ শেষে পাওয়া অর্থ সেই ব্যক্তির যেকোনো বড় ধরনের কাজে উপকারে আসবে। চলুন এই পিপিএফ সম্পর্কে বিস্তারিতভাবে জেনে নেওয়া যাক।

বর্তমান সময়ে এই পাবলিক প্রভিডেন্ট ফান্ড থেকে ৭.১% হারে সুদ পাওয়া যাচ্ছে। দীর্ঘ ১৫ বছরের জন্য বিনিয়োগ করতে হয় এই ফান্ডে। ১২,৫০০ টাকা সঞ্চয় করে বছরে ১.৫ লাখ টাকা বিনিয়োগ করা যায় এই ফান্ডে। অন্যদিকে, নূন্যতম ৫০০ টাকা বিনিয়োগ করা যায়।

উদাহরণস্বরূপ বলা যায় কোনো ব্যক্তি যদি টানা ১৫ বছর এই পিপিএফে বিনিয়োগ করেন তাহলে মেয়াদ শেষে তিনি সুখ সমেত পাবেন ৪০ লাখ ৬৮ হাজার ২০৯ টাকা পাবেন। যার মধ্যে বিনিয়োগের পরিমাণ ১৮ লাখ ১৮ হাজার ২০৯ টাকা। বাকি ২২ লাখ ৫০ হাজার টাকা হল সুদের পরিমাণ। যা ১৫ বছর পর সেই ব্যক্তির কাছে সোনায় সোহাগা হয়ে উঠবে।